BGMEA DAILY DIGEST
News published in media related to RMG: Today’s RMG News

uploads/trade_daily/digest_photo_B_insider__1642222399.jpg
The Business Insider
BGMEA has called on the country’s apparel exporters to focus more on value-added, high-end apparel items as their demand is high in the global market. “The demand for man-made fibre (MMF)-based garment items is on the rise in the global market. So it is high time we shifted our focus to non-cotton-based textile and apparel to realign our product mix in line with global sourcing trends,” BGMEA President Faruque Hassan said Thursday. He made the observations while visiting 4A Yarn Dyeing at Savar of Dhaka, reports United News of Bangladesh. Abdullah Hil Rakib, managing director of 4A Yarn Dyeing and also a director of the BGMEA, was present.
uploads/trade_daily/digest_photo_dhakapost-Omicron__1642222399.jpg

ঢাকা পোস্ট
ওমিক্রনে কমেছে অর্ডার-রফতানি, শঙ্কায় পোশাক মালিকরা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে দেশের পোশাক খাতে। ফলে অক্টোবর ও নভেম্বরের তুলনায় গেল বছরের ডিসেম্বরে রফতানি অর্ডার কমেছে। ২০ ডিসেম্বর থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত নতুন করে খুব বেশি অর্ডারও আসেনি। ডেনিম এক্সপার্ট লিমিটেড ও বিজিএমইএর পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘ওমিক্রনের কারণে বায়াররা ডেলিভারি স্লো করে দিয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত দেশের পোশাক খাতে কোনো অর্ডার বাতিল হয়নি।’ক্ল্যাসিক ফ্যাশন কনসেপ্টের এমডি ও বিজিএমইএর সহ-সভাপতি শহীদউল্লাহ আজিম বলেন, ‘ওমিক্রনের কারণে গত ডিসেম্বর থেকেই অর্ডার কমে আসছে। অর্ডার এখন কমলেও আমাদের সমস্যা নেই। কারণ আমাদের কাছে যে অর্ডার রয়েছে, তা দিয়ে জুন পর্যন্ত কাজ করতে পারব।’ বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, ‘ওমিক্রন ও ক্রিসমাসের কারণে এখন নতুন অর্ডার স্লো রয়েছে। কিন্তু আমাদের কাছে এখন পর্যন্ত যে অর্ডার রয়েছে সেগুলো সামাল দিতে পারছি না। পরিবেশ এখনো আমাদের অনুকূলে রয়েছে। আশা করছি, ভালো থাকবে।’

uploads/trade_daily/digest_photo_Independent__1642222399.jpg

The Independent
Dhaka airport's 3rd terminal to 'boost' trade Construction of the third terminal of Hazrat Shahjalal International Airport is expected to significantly enhance the capacity of passenger and cargo handling and will contribute to boosting Bangladesh's trade. The new terminal is set to more than double the airport's annual passenger handling capacity – from eight million to over 20 million – and cargo capacity – from 200,000 tonnes to 500,000 tonnes. AKM Maksudul Islam, project director of the third terminal, briefed a delegation of the BGMEA about the features and amenities of the new terminal when they visited the site Thursday. The delegation included BGMEA President Faruque Hassan; vice-presidents Shahidullah Azim and Miran Ali, Director Asif Ashraf and former director Ashikur Rahman (Tuhin).

uploads/trade_daily/digest_photo_FE_cotton__1642222399.jpg

The Financial Express
Cotton crisis looms on feeder vessel shortage Primary textile millers on Thursday expressed fear that the sector might face a crisis of cotton in March and onwards as the global shipping lines are showing unwillingness to carry containers to Bangladesh due to a shortage of feeder vessels and a lengthy unloading time here in the country. They also feared suspension of production in spinning mills and rise in yarn prices in the local market if they failed to get cotton in time. "At present, we are in an uncertain situation over the availability of cotton," said Mohammad Ali Khokon, president of the Bangladesh Textile Mills Association (BTMA).

uploads/trade_daily/digest_photo_TBS_As_edit__1642222399.jpg

The Business Standard
As RMG orders surge, so do the headaches Shortage of workers and other issues put RMG factories in a tight spot because of the challenges to deliver on time. Shovon Islam, the Managing Director of Sparrow group, shares more details.

uploads/trade_daily/digest_photo_Bonikbarta_4_yarn__1642222399.jpg

বণিক বার্তা
ফোরএ ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড পরিদর্শনে বিজিএমইএ সভাপতি সম্প্রতি সাভারে ফোরএ ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড পরিদর্শন করেন বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফোরএ ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও বিজিএমইএর পরিচালক আব্দুল্লাহ হিল রাকিব।

uploads/trade_daily/digest_photo_P_Alo_export__1642222399.jpg

প্রথম আলো
রপ্তানি আয় তিন বছরে দ্বিগুণ করার লক্ষ্য আট হাজার কোটি মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে নতুন রপ্তানি নীতির (২০২১-২৪) খসড়া অনুমোদন করেছে অর্থনৈতিক বিষয়–সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। অর্থাৎ লক্ষ্যমাত্রা পুরোপুরি অর্জন করতে হলে গত অর্থবছর থেকে পরবর্তী তিন অর্থবছরে রপ্তানি আয় বাড়িয়ে এখনকার চেয়ে দ্বিগুণের বেশি করতে হবে। বুধবার ভার্চু৵য়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে রপ্তানি নীতির খসড়া অনুমোদন করা হয়েছে বলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের জানান। অর্থমন্ত্রী বলেন, নতুন রপ্তানি নীতিতে সম্ভাবনাময় কিছু নতুন পণ্য ও সেবা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের মাধ্যমে কীভাবে রপ্তানি বাণিজ্য বাড়ানো সম্ভব, সেটিও রয়েছে নতুন নীতিতে। স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ–পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার কর্মকৌশল প্রণয়নের বিশদ বিবরণও রয়েছে এতে।

uploads/trade_daily/digest_photo_FE_RMG__1642222399.jpg

The Financial Express
RMG-like safety in other sectors also needed: CPD Industrial safety measures in non-RMG enterprises need to be similar to those in the RMG sector, in order to reduce accidents and casualties, said the Centre for Policy Dialogue (CPD). "Rigorous industrial safety measures are of critical importance now to reduce the accidents and casualties and measures would be similar to those that had been done in the RMG sector after the Rana Plaza tragedy," said Dr Khondaker Golam Moazzem, research director at the CPD. Dr Moazzem was presenting a paper on industrial safety of non-RMG enterprises and workers at a media briefing - 'Fire incidents in workplaces and workers safety: where are corrective actions?' - jointly organised by CPD and Christian Aid in Bangladesh on Thursday to assess a government initiative on industrial safety.

uploads/trade_daily/digest_photo_P_Alo_EPZ__1642222399.jpg

প্রথম আলো
আরও তিনটি ইপিজেড হচ্ছে বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) অধীনে আরও তিনটি ইপিজেড হবে। এ জন্য বেপজার নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় হবে ৩ হাজার ১০০ কোটি টাকা। প্রস্তাবিত তিন ইপিজেড (রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল) হবে গাইবান্ধা, যশোর ও পটুয়াখালীতে।