BGMEA DAILY DIGEST
News published in media related to RMG: Today’s RMG News

uploads/trade_daily/digest_photo_KK_BGMEA_P__1623651799.jpg
কালের কন্ঠ
বেসরকারি খাতের বিনিয়োগে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা এখনো বড় বাধা বলে মন্তব্য করেছেন দেশের রপ্তানি আয়ের শীর্ষ খাত তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি মো. ফারুক হাসান। তিনি বলেন, দেশের পোশাকশিল্পে উচ্চমূল্যে পণ্য তৈরি করার সক্ষমতা থাকলেও সরকারি কর্মকর্তাদের দরজায় হাজিরা দিতে দিতে বিনিয়োগকারীরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। গতকাল রবিবার ‘বাজেট প্রতিচ্ছবি ২০২১-২২’ বিষয়ে এক ভার্চুয়াল সেমিনারে বিজিএমইএ সভাপতি এসব কথা বলেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠানের ধীরগতির কারণে বিশ্বব্যাংকের ব্যবসায় সহজীকরণ সূচকে (ইজি অব ডুয়িং বিজনেস) এখনো বাংলাদেশ অনেক পেছনে।
uploads/trade_daily/digest_photo_DS_Build__1623651799.jpg

The Daily Star
Build an effective business-friendly environment, garments makers urge BIDA Garment makers today demanded creating an effective business-friendly environment and improving the ease of doing business to attract more investment in the country, especially in non-cotton or manmade fibre (MMF) based textiles. Faruque Hassan, president of Bangladesh Garment Manufacturers and Exporters Association (BGMEA), placed the demand to Md Sirazul Islam, executive chairman of Bangladesh Investment Development Authority (BIDA). Hassan was leading a delegation of the association in a meeting with the high-ups of BIDA in Dhaka. The BGMEA delegation included Miran Ali, vice-president; Inamul Haq Khan (Bablu), Asif Ibrahim, Asif Ashraf, Abdullah Hil Rakib, Vidiya Amrit Khan, and Mijanur Rahman, directors, according to a statement of the association.

uploads/trade_daily/digest_photo_D_Rupantor_BIDA__1623651799.jpg

দেশ রুপান্তর
বিডাকে ব্যবসায় সহজ সূচক উন্নতি করার তাগিদ বিজিএমইএর দেশে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে ব্যবসায় সহজ সূচকের উন্নতি করতে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্র্তৃপক্ষকে (বিডা) আহ্বান জানিয়েছে পোশাক কারখানা মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ। গতকাল রবিবার বেজা কার্যালয়ে সংস্থাটির নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলামের সঙ্গে বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল সৌজন্য সাক্ষাৎ করে। সেখানে এই আহ্বান জানান। বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান সংগঠনটির প্রতিনিধিত্ব করেন। বিশ্বব্যাংক ১৯০টি দেশের ব্যবসায় সহজ করার সূচক নির্ণয় করে থাকে। এই সূচকে বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান ১৬৮তম।

uploads/trade_daily/digest_photo_SAmakal_ERF_edit__1623651799.jpg

সমকাল
টিকায় পিছিয়ে থাকলে হারাবে রপ্তানি বাজার: ইআরএফের ওয়েবিনারে বক্তারা প্রতিযোগী অন্যান্য দেশের সঙ্গে টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকলে হারাতে হবে রপ্তানি বাজার। দ্রুত টিকাদান শেষ করতে না পারলে বিদেশের শ্রম বাজারে প্রবেশেও নিষেধাজ্ঞা আসতে পারে। এ সুযোগ নেবে বাংলাদেশের প্রতিযোগী দেশগুলো। গতকাল রোববার এক ওয়েবিনারে এমন শঙ্কা প্রকাশ করেছেন আলোচকরা। বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, জরুরিভিত্তিতে সবার জন্য টিকা প্রয়োগের বিষয়টি শেষ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখনও অনেক পিছিয়ে আছে। টিকায় পিছিয়ে থাকলে রপ্তানিতেও পিছিয়ে পড়তে হবে। পোশাক খাতের জন্য সরকারের কাছে আরও একটি প্রণোদনা প্যাকেজের দাবি তুলে ধরেন তিনি। এর প্রয়োজনীয়তার ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, ক্রেতাদের কাছ থেকে সময়মতো অর্থ না পাওয়ায় এ মুহূর্তে উদ্যোক্তাদের হাতে নগদ অর্থ নেই। পরিচালন ব্যয়সহ অন্যান্য ব্যয় মেটাতে প্রণোদনা প্যাকেজ প্রয়োজন।

uploads/trade_daily/digest_photo_DS_Our_industry-digitising__1623651799.jpg

The Daily Star
Our industry is digitising rapidly, are we ready?  We all knew the global pandemic would change the business world in some way but, until recently, it has been difficult to pinpoint precisely how. For many of us, the past 16 months have been a fight to remain competitive above all else. Indeed, for some, it has been a fight for survival. As the dust begins to settle, however, and normal trading begins to properly resume in many of Bangladesh's largest export markets, one trend is presenting itself loud and clear: the shift to online, e-commerce sales.

uploads/trade_daily/digest_photo_Bonikbarta_Customs__1623651799.jpg

বণিক বার্তা
বেনাপোল কাস্টমসের নতুন শর্ত: আমদানি বাণিজ্যে ধীরগতির শঙ্কা, ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ ভারত থেকে আমদানি বাণিজ্য ও পণ্য ছাড়করণের ক্ষেত্রে আট শর্ত জারি করেছে বেনাপোল কাস্টম হাউজ। এসব শর্তের ফলে কাস্টমস কর্মকর্তারা অনিয়ম কমে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে মনে করলেও ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, এতে আমদানি বাণিজ্যে ধীরগতি দেখা দেবে। পাশাপাশি অতিরিক্ত খরচ বেড়ে যাওয়ায় তৃণমূল পর্যায়ের ব্যবসায়ীরা বাণিজ্যে আগ্রহ হারাবেন। সম্প্রতি বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার আজিজুর রহমান স্বাক্ষরিত শর্ত জারির অনুলিপিটি অবগতির জন্য বাণিজ্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আটটি প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে। এসব শর্তের মধ্যে রয়েছে একটি সুনির্দিষ্ট ও ডিটেইল প্যাকিং লিস্ট (সুনির্দিষ্ট বর্ণনা, মার্কস নম্বর, আর্ট নম্বর, পার্ট নম্বর ও ব্র্যান্ড নামসহ) এবং সুস্পষ্ট কান্ট্রি অব অরিজিন থাকা বাধ্যতামূলক, আমদানীকৃত পণ্য চালানের বিপরীতে দাখিলকৃত বাণিজ্যিক দলিলাদির সঙ্গে ডিটেইল প্যাকিং লিস্ট এবং কান্ট্রি অব অরিজিন দাখিল করতে না পারলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

uploads/trade_daily/digest_photo_Samakal_Jamanot__1623651799.jpg

সমকাল
জামানত ছাড়া আমদানি পরবর্তী অর্থায়ন নয় জামানত ছাড়া এখন থেকে কোনো ব্যাংক আর আমদানি-পরবর্তী অর্থায়ন করতে পারবে না। একই গ্রুপভুক্ত বা স্বার্থ-সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কেনাবেচা ও স্থানীয় ঋণপত্রের বিপরীতে এ ধরনের ঋণ দেওয়া যাবে না। আমদানি-পরবর্তী অর্থায়ন বিষয়ে প্রথমবারের মতো একটি নীতিমালা করে সেখানে এ রকম নানা নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পণ্য আমদানির পর বিক্রির মধ্যবর্তী সময়ের জন্য অর্থায়ন করে ব্যাংকগুলো। বর্তমানে এ ধরনের অর্থায়নে জামানতের কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। একেক ব্যাংকে একেক রকম নীতিমালা থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে জামানতের বিষয়টি শিথিলতার সঙ্গে দেখা হয়।

uploads/trade_daily/digest_photo_Ittefaq_Corona__1623651799.jpg

দৈনিক ইত্তেফাক
করোনা টিকাদানের বিষয়ে পর্যাপ্ত তথ্য শ্রমিকদের কাছে নেই কোভিড-১৯-এর টিকাদানের ব্যাপারে পর্যাপ্ত তথ্য শ্রমিকদের কাছে নেই। ভ্যাকসিন নিতে চান এমন শ্রমিকদের মধ্যে মাত্র ২২ শতাংশ এটি নেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পর্কে অবগত রয়েছেন। এই পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক বলে উল্লেখ করেছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সানেম। এক জরিপের তথ্য উল্লেখ করে সানেমের বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, ভ্যাকসিন গ্রহণ নিশ্চিত করা না গেলে বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শিল্পে কর্মরত লাখো শ্রমিকের জীবন ঝুঁকির মুখে পড়বে। তৈরি পোশাক খাতের উত্পাদন, রপ্তানি এবং সামগ্রিকভাবে পুরো অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে কারখানার মালিকপক্ষ, সরকার, নীতিনির্ধারক ও অ্যাডভোকেসি গ্রুপগুলোকে সম্মিলিতভাবে শ্রমিকদের স্বাস্থ্য ও জীবনের নিরাপত্তা বিষয়ে অগ্রাধিকার দিতে হবে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতি চলাকালীন বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকদের জীবনে কী ধরনের পরিবর্তন এসেছে সে বিষয়টি বোঝার জন্য সানেম ও মাইক্রোফাইন্যান্স অপরচুনিটিজ (এমএফও) যৌথভাবে ধারাবাহিক জরিপ পরিচালনা করছে।